35 Days
17 Hours
50 Minutes
39 Seconds

টীম ক্যাটালিস্ট এর প্রার্থী পরিচিতি

Image

সাইফুল ইসলাম সিদ্দিক

ব্যবস্থাপনা পরিচালক, আইসিসি কমিউনিকেশন লিঃ

ব্যালট নং- (G-055)

ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প বাস্তবায়নের সারথী হিসেবে উদ্যোক্তা জীবনের দুই দশকে একে একে গড়ে তুলেছেন ১০টির অধিক প্রযুক্তি সেবা প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠানে সহস্রাধিক কর্মীর কর্মসংস্থান করে সমৃদ্ধ করেছেন দেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতকে। পেশা ও ব্যবসায় দক্ষতায় একে একে অর্জন করেছেন আইআইজি, আইএসপি, আইপিটিএসপি, আইপিটিভি, ভিএসপি, কল সেন্টার ও ভয়েস অ্যাপ লাইসেন্স। এর মাধ্যমে প্রান্তিক মানুষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন প্রযুক্তি ও ইন্টারনেট ভিত্তিক উদ্ভাবনী সেবা। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে ইউরোপ-আমেরিকার মতো উন্নত দেশেও ছড়িয়ে পড়েছে এই সেবার পরিধি। ফলশ্রুতিতে বিশ্বের বাংলাদেশী কমিউনিটির কাছে ‘রেডিয়েন্ট আইপিটিভি’ নামটি আজ সুবিদিত। দেশে সবার আগে তারের জঞ্জালমুক্ত ইন্টারনেট সেবা দিয়ে রাজধানী গুলশান এলাকায় আভিজাত্য ফিরিয়ে আনছে। ক্রমেই নাগরিক জীবনে স্বাচ্ছন্দ্য নিয়ে আসছে ‘ট্রিপল প্লে’। শুধু তাই নয়, অনলাইনে ‘ডিজিবাংলা টিভি’র মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুষ্ঠান নিউইয়র্ক থেকে সরাসরি সম্প্রচার করে তিনি প্রমাণ করেছেন তার সাংগঠনিক প্রযুক্তি দক্ষতাকে। ব্যক্তিগত ব্যবসায়ের পাশাপাশি জাতীয় ভাবে তথ্যপ্রযুক্তি খাতকে এগিয়ে নিতে প্রতিষ্ঠাকাল থেকেই দেশের প্রথম তথ্য-প্রযুক্তি পেশাজীবি সংগঠন- বিসিএস, সফটওয়্যার খাতের সংগঠন বেসিস, ই কমার্স খাতে e-CAB এবং ডিজাটাল বাংলাদেশ রূপকল্প প্রতিষ্ঠার অন্যতম অংশীদার আইএসপিএবি’র সদস্য হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছেন। একইসঙ্গে ব্যবসায় সংগঠন অ্যামচ্যাম ও ডিসিসিআই এর সদস্য হিসেবেও দেশের তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবসায় খাতের প্রতিনিধিত্ব করছেন। কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতকত্তোর শেষ করার আগেই নিজেকে নিয়োজিত করেন উদ্যোক্তা জীবনের চ্যালেঞ্জে। ১৯৯৭ সালে ইন্টারন্যাশনাল কম্পিউটার কানেকশনস (আইসিসি) গড়ে তুলে ডেল, এইচপি, মাইক্রন পিসি, সিসকো ও মাইক্রোসফটের মতো বিশ্ব নন্দিত প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বাংলাদেশের মিতালী গড়ে তোলেন। পেশাজীবনের সফলতায় এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাননি। দুর্বার গতিতে একে একে গড়ে তোলেন আইসিসি কমিউনিকেশন লিঃ (২০১০), আইসিসি টেলিসার্ভিসেস লিঃ (২০১২), ডিজিটাল বাংলা মিডিয়া লিঃ https://digibangla.tech (২০১৬), পিয়ারএক্স নেটওয়ার্কস লিঃ(২০১৮), এয়ার পোস্টেড লিঃ (২০১৮), ট্রাভোজেট (২০১৮), পে স্যুইফ সল্যুশনস লিঃ(২০১৯)। এতোগুলো প্রাতিষ্ঠানিক চ্যালেঞ্জে এগিয়ে থেকেও পিছিয়ে যাননি আর্তমানবতার সেবার ব্রত থেকে। দেশের দুঃস্থ-গরীব ও সুবিধা বঞ্চিত মানুষের অর্থনৈতিক জীবনমানের উন্নয়নে ২০১০ সাল থেকে কিউআইএস (কামরুল ইসলাম সিদ্দিক) মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সামাজিক দায়বদ্ধতা পালন করে আসছেন। ইন্টারনেট প্রযুক্তির মাধ্যমে শহর-গ্রামের দূরত্ব ও বৈষম্য ঘুচে দিতে দেশের সকল আইএসপি প্রতিষ্ঠানের ক্ষমতায়নের ব্রত নিয়ে ছুটে চলছেন তারুণ্যের গতিতে। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের নেতৃত্বের আসনে নিয়ে যেতে চান আইএসপিএবি-কে।

পরিবার:
পিতা: মরহুম প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম সিদ্দিক (প্রতিষ্ঠাতা প্রধান প্রকৌশলী, এলজিইডি; চেয়ারম্যান, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড; সচিব, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়)। মাতা: বেগম সাবেরা সিদ্দিক। তিনি এক পুত্র ও এক কন্যার জনক।

Image

আজহারুল হক চৌধুরী

প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা, ব্র্যাক নেট লিঃ

ব্যালট নং- (G-021)

১৯৯৬ সালে গ্রামীণ সাইবারনেট এর মাধ্যমে ইন্টারনেটে যাত্রা শুরু করেন। 'আইএসপি ফোরাম' পরিবর্তিতে 'আইএসপিএবি' জন্মলগ্ন থেকে জড়িত। ঐ সময় কোষাধ্যক্ষ পদে বহাল ছিলেন। আইএসপিএবি'র উদ্যোগে ২০০৪ প্রথম 'ইন্টারনেট মেলা' ও পরের বছরে ও 'ইন্টারনেট মেলা' এর আহবাহক হিসাবে সফলভাবে দুইটি মেলা সুসম্পন্ন করেন। ২০০৮ সালের নির্বাচনে জয়ী হয়ে 'ভাইস-প্রেসিডেন্ট' পদে কাজ করেন, CSTF উহার একক চেষ্টায় গড়ে উঠে, BDIX ও BDCert গঠনে মূল কমিটিতে যুক্ত ছিলেন ও ঢাকার বাহিরে চট্টগ্রামে প্রথম ট্রেনিং প্রোগ্রাম শুরু করেন। বর্তমানে ব্র্যাক নেটের সিওও পদে বহাল।

Image

মো: রুহুল আমিন সরকার

পরিচালক, গ্রামীণ সাইবারনেট লিমিটেড

ব্যালট নং- (G-051)

তিনি ১৯৯৬ ইং সাল থেকে গ্রামীণ সাইবারনেটে কর্মরত আছেন| সে সময় থেকেই তিনি ইন্টারনেট ব্যবসার সাথে সংশ্লিষ্ট সকল সরকারি ও আধা-সরকারি সংস্থা যেমন; বিটিআরসি, বিটিসিএল, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ইত্যাদির সাথে আইসিটির বিকাশের লক্ষে অত্যন্ত সুনামের সাথে কাজ করে আসছেন | ইহা ছাড়াও তিনি বিভিন্ন সময়ে বিটিআরসি ও এনটিএমসি এর সাথেও পলিসি/নেটওয়ার্ক সংক্রান্ত বিষয়ে কাজ করেছেন | বর্তমানে তিনি দেশের প্রত্যন্ত দুর্গম এলাকায় কিভাবে সহজে এবং স্বল্প খরচে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট এর মাধ্যমে ইন্টারনেট ও ডাটা সার্ভিস প্রদান করা যায় সে বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছেন | তিনি আইএসপি এসোসিয়েশন এর স্বার্থ অক্ষুন্ন রেখে বিটিআরসি এবং এনবিআর এর সাথে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে অদ্যাবধি অমীমাংসিত বিষয়ের আশু সমাধানে বদ্ধপরিকর ।

Image

জোবায়ের আলমাহমুদ হোসেন

ব্যবস্থাপনা পরিচালক এন্ড সি টি ও বাংলানেট টেকনোলজিস লিঃ

ব্যালট নং- (G-016)

জোবায়ের আলমাহমুদ হোসেন গত ১৫ বছরের আধিক সময় ধরে আই এস পি, আইটি প্রতিষ্ঠান ও এন জি ও এর আইটি ইনফ্রাস্ট্রাকচার বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে সরাসরি কাজ করছেন। এর মধ্যে শুধু ISP সেক্টরে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে প্রায় ১ যুগেরও বেশি সময় ধরে কাজ করছেন। তিনি একজন স্বনামধন্য লিনাক্স এক্সপার্ট ও দেশের প্রথম RedHat Certified System Architect Level-3। তার দৃঢ় নেতৃত্বে বাংলানেট টেকনোলজিস লিঃ, সেন্ট্রাল জোন আই এস পি অত্যন্ত সুনামের সাথে ISP ব্যবসা পরিচালনা করছে। বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে আইসিটি ডিভিশন ও আইসিটি অধিদপ্তর এর সঙ্গে বেশ কিছু প্রকল্প বাস্তবায়নে বাংলানেট টেকনোলজিস লিঃ অত্যন্ত সুনামের সাথে কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে আসছে। জোবায়ের তার কর্ম জীবনের প্রায় ৮ বছর BRAC (Largest NGO in the World) এর হেড অফ ইনফ্রাসটাকচার হিসাবে দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। BRAC এ থাকাকালীন তার হাতে দেশে ও বিদেশে অনেক উল্লেখযোগ্য ইনফ্রাসটাকচার উন্নয়নের কাজ সংগঠিত হয় যা সর্বস্তরে প্রশংসিত হয়। এছাড়া ও দেশের স্বনামধন্য কয়েকটি আই এস পি আকিজ অনলাইন, এশিয়া ইনফোসিস ও সফটওয়্যার কম্পানি গ্রামীণ সল্যুশন এ তিনি কর্মরত ছিলেন। তিনি চাকুরিরত থাকা অবস্তায় তার আইটি সার্ভিস ও ট্রেনিং প্রতিষ্ঠান বাংলানেট টেকনোলজিস লিঃ প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি তার চাকুরি ও ব্যবসার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক ব্যবসায়িক সংগঠনের কর্মকাণ্ডে নিজেকে সবসময় সংশ্লিষ্ট রেখে ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় সক্রিয় ভূমিকা রেখে আসছেন। তিনি বর্তমানে BASIS এর লোকাল মার্কেট উন্নয়ন ও ইন্টারন্যাশনাল মার্কেট উন্নয়ন বিষয়ক দুইটি স্থায়ী কমিটিতে সক্রিয় সদস্য হিসাবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে আসছেন। সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত WAN ও Cloud বিষয়ক আন্তর্জাতিক সেমিনার WAN Summit 2018 ও WAN Summit 2016 এ প্যনেলিষ্ট হিসাবে পরপর দুইবার প্রথম বাংলাদেশী হিসাবে অংশগ্রহণ করেন। এ ছড়া bdNOG এ একাধিকবার ও দেশি বিভিন্ন আইসিটি বিষয়ক সেমিনার ও প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রেজেন্টেশন প্রদান করেন। তিনি ২০১৫ সালে বাংলাদেশী এডমিনদের ও আইটি প্রফেশনালদের নিয়ে বাংলাদেশ এডমিন ফোরাম BDSAF প্রতিষ্ঠা করেন। BDSAF এর আয়োজনে পর্যন্ত একটি জাতীয় পর্যায়ে কনফারেন্স ২টি প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজন করেছেন। বর্তমানে তিনি ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের সংগঠন আইডিইবি এর আইসিটি এন্ড ইনোভেশন বিভাগের সদস্য সচিব হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার সুদীর্ঘ কর্ম অভিজ্ঞতা ও সংগঠনিক অভিজ্ঞতা ISPAB কে সামনে এগিয়ে নিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারবে।

Image

মোঃ মনিরুজ্জামান মনির

প্রোপাইটর, ডলি আইটি কর্নার

ব্যালট নং- (G-046)

সাংগঠনিক কর্মঃ প্রচার সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক, বর্তমান যুগ্ন- সাধারণ সম্পাদক,সি কোয়াব।

ব্যবস্থাপনা পরিচালকঃ প্যারডাইস ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড

২০০৩ সাল থেকে দীর্ঘ ১৬ বছর ISP সেক্টরে অবদান রাখছেন। সাইবার ক্যাফে ও ISP ক্যাটাগরি ব্যাবসায়ীদের সংগঠন CCOAB এর প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে সদস্য। CCOAB নির্বাচন- ২০১৩ প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক নির্বাচিত, CCOAB নির্বাচন-২০১৭ সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত, CCOAB নির্বাচন- ২০১৯ যুগ্ন- সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। CCOAB এ নেতৃত্ব কালিন সময় ISP ক্যাটাগরি ব্যাবসায়ীদের উপর হামলা, ব্যাবসা দখল ও পেশি শক্তির বিরুদ্ধে সয়ং উপস্থিত থেকে BTRC, স্থানিয় প্রশাষন ও রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গের সহায়তায় সমস্য সমাধান করেছেন এবং ব্যাবসায়ীদের মাঝে প্রশংসিত হয়েছেন। জনাব মোঃ মনিরুজ্জামান মনির Paradise Engineering Ltd (ইন্ডাস্ট্রিয়াল)এর ব্যাবস্থাপনা পরিচালক ও ইলেকট্রিক এসোসিয়েশন এর সদস্য। Paradise Engineering Ltd বাংলাদেশের বেতার, বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ পুলিশ, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সহ সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোয় প্রযুক্তির আধুনিকায়নে ঠিকাদার ও বিদেশি কোম্পানির লোকাল এজেন্ট হিসাবে কাজ করে যাচ্ছে। জনাব মোঃ মনিরুজ্জামান মনির একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন করার লক্ষে সারা বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের সন্তানদের ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষে কাজ করছেন।বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সাবেক তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক, বর্তমান প্রচার ও প্রকাশনা বিষায়ক সম্পাদক হিসাবে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। জনাব মোঃ মনিরুজ্জামান মনির বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর উপকমিটিতে আছেন এবং একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর নির্বাচন পরিচালনা কমিটি ও নির্বাচন পর্যবেক্ষক কমিটিতে কাজ করেছেন।

Image

এস, এম, জুলফিকার হায়দার

চেয়ারম্যান, জেডএক্স অনলাইন লিঃ

ব্যালট নং- (G-112)

প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সাইবার ক্যাফে ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (CCOAB)

CCOAB পর পর তিনবার প্রেসিডেন্ট তার মধ্যে ২ বার সরাসরি সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত। ২০১৫ সালের নির্বাচনে ১১০ ভোটের মধ্যে ১০৯ ভোট পান। সাফল্য: CCOAB কে বানিজ্য মন্ত্রনালয় থেকে T.O. লাইসেন্স পাওয়া

সাইবার ক্যাফে ব্যবসায়ীরা ঘরে ঘরে ইন্টারনেট সেবা দেওয়া শুরু করলে বিটিআরসি এর সাথে ২০০৬ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত আলাপ আলোচনা করে তার নেতৃত্বে CCOAB টীম সফল ভাবে ক্যাটাগরি লাইসেন্সের প্রবর্তনে অবদান রাখেন। দীর্ঘ দিন লাইসেন্স প্রদান বন্ধ রাখার প্রতিবাদে তার ইসিসহ সংবাদ সম্মেলন করে এর প্রতিবাদ জানানো। যার ফলশরুতিতে আবার লাইসেন্স প্রদান চালু। ২০১৫ সালে ধানমন্ডিতে সন্ত্রাসী কর্তৃক নাম করা ISP সহ ১০/১২ টা কোম্পানি আক্রান্ত হলে বিটিআরসির সহায়তায় তা রুখে দিয়ে ওই আইএসপিদের ব্যবসা ফিরিয়ে দেওয়া। এরকম আরো অনেক সাফল্য এসেছে তার নেতৃত্বে CCOAB এর ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা: বি এস সি কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, এন এস ইউ ( প্রথম ব্যাচ )। স্পেশাল ট্রেনিং: LCMC, IBA CIBS, IBA পেশাগত অভিজ্ঞতা: 1. Faculty Member, NIIT (1999) 2. Software Developer METAFOUR ASIA ( UK BASED SOFTWARE DEV COMPANY) (2000) 3. IT MANAGER: SAVE THE CHILDREN (USA) (2000 TO 2001)

পারিবারিক পরিচিতি: পিতা : মরহুম প্রকৌশলী: এস,এম হায়দার আলী (ইলেকট্রিকাল ইঞ্জি: বুয়েট) মাতা:প্রফেসর ডা: জুলফি আর হায়দার ( ঢাকা মেডিকেল কলেজ) স্ত্রী: ডা. আফসানা আহমেদ ( এসোসিয়েট প্রফেসর ঢাকা ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ) এক পুত্র আইমান হায়দার ও এক কন্যা জুহাইনা হায়দার ভাই: ডা: বেনিয়ামিন হায়দার বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বর্তমানে উনি ZX ONLINE LTD. এর চেয়ারম্যান।

Image

মোঃ শরিফুল ইসলাম

প্রোপাইটর, ব্রীস্ক সিস্টেম

ব্যালট নং- (G-023)

প্রতিষ্ঠান: ব্রীস্ক সিস্টেম (সেন্ট্রাল জোন) প্রোপাইটর, প্রধান নির্বাহী গ্লোরী সাইবার ক্যাফে ব্রডব্যান্ড সার্ভিস (ক্যাটাগরি-এ) প্রোপাইটর।

২০০২ সন থেকে আইএসপি ব্যবসায় সম্পৃক্ত। সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড: জয়েন সেক্রেটারি (২০১০-২০১২), সাইবার ক্যাফে ওনার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ সহ-সভাপতি (২০১৩-২০১৫) ঐ সহ-সভাপতি (২০১৭-২০১৯)ও সদস্য: এফবিসিসিআই (২০১৫-২০১৭) সদস্য: এফবিসিসিআই (২০১৯-২০২১) জয়েন সেক্রেটারি (২০১৮-২০২০) বাংলাদেশ রেস্তোরাঁ মালিক সমিতি; ঢাকা মহানগর উত্তর। পরিশ্রমী ও একজন সফল ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা।

Image

কামরুল আলম শামীম

পরিচালক প্রশাসন, চিটাগাং মাল্টি চ্যানেল লিঃ।

ব্যালট নং- (G-028)

বিগত ২০০৯ সাল হতে ইন্টারনেট সেবা প্রদানের সাথে সম্পৃক্ত। ঘরে ঘরে ডিজিটাল বাংলাদেশ এর সুফল পৌছে দেওয়ার লক্ষ্যে তিনি সমগ্র চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, বান্দরবান, ফেনী, নোয়াখালী জেলায় ইন্টারনেট সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছেন। অপটিক্যাল ক্যাবল এর মাধ্যমে প্রত্যেক এর কাছে ইন্টারনেট সহজলভ্য করার ক্ষেত্রে সিএমসিএল যে আমূল পরিবর্তন এনেছে তার নেতৃত্ব দিয়েছেন কামরুল আলম শামীম । চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম.কম করা কামরুল আলম শামীম একজন কৃতি ফুটবলার ছিলেন । তিনি ঢাকা ও চট্টগ্রাম লীগের নিয়মিত খেলোয়াড় ছিলেন । তিনি বতর্মানে চট্টগ্রাম ব্রাদার্স ক্লাব ও লিটল ব্রাদার্স ক্লাব এর সাথে জড়িত । সাথে সাথে তিনি চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ও চট্টগ্রাম ডায়বেটিকস হাসপাতাল এর আজীবন সদস্য । হাস্যজ্জ্বল ও বন্ধুত্ব সূলভ ব্যক্তিত্বের জন্য তিনি সবার কাছে পরিচিত। আইএসপিএবি এর চট্টগ্রামের সকল কর্মকান্ডে তার সহযোগীতা ও সম্পৃক্ততা সকল সময় ছিল এবং আগামীতে আরও ব্যাপক আকারে আইএসপিএবি কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত করতে আশা ব্যক্ত করে সকলের সহযোগীতা কামনা করছেন।